fbpx
designer desk

গ্রাফিক ডিজাইনে কি কি ধরণের কাজ করা হয়?

গ্রাফিক ডিজাইন করে কেমন টাকা আয় করা যায়? কিভাবে আয় করা যায়? কত টাকা আয় করা যায়? এমন প্রশ্নগুলো খুবি কমন…

আজকের এই পোস্টে আমি আপনাদেরকে ধারনা দেওয়ার চেষ্টা করবো গ্রাফিক ডিজাইনার রা কি কি ধরণের কাজ করে থাকে।

নতুনরা মনে করেন গ্রাফিক ডিজাইন মানেই বিজনেস কার্ড আর ফ্লায়ার ডিজাইন। মূলত গ্রাফিক ডিজাইনের কর্মের ক্ষেত্র ব্যাপক। কোন ডিজাইনারই একই সাথে সব ক্যাটাগরিতে দক্ষ হয় না।

ডিজাইন এর কাজ কে প্রধানত ২ ভাগে ভাগ করা যায়।

১) প্রিন্ট ডিজাইন

প্রিন্ট ডিজাইন অনেক ধরণের হতে পারে, কাগজে প্রিন্ট করা যে কোন ধরনের ডিজাইন সেইটা লোগো, কর্পোরেট এইডেনটিটি, ফ্লায়ার, ফুড মেনু, পোস্টকার্ড, রেক কার্ড, পোস্তার, ম্যাগাজিন, এডভারটাইজমেন্ট এর পাশাপাশি ডিজিটাল সাইনবোর্ড, টিশার্ট এর প্রিন্ট ডিজাইন, যেকোনো ধরণের ফেব্রিক এর ডিজাইন, আর্ট এন্ড ইলাসট্রেসন, প্যাটার্ন ডিজাইন (প্যাটার্ন এর ব্যাবহার ব্যাপক, সুধু মাত্র ভালো সিমলেস প্যাটার্ন ডিজাইন করে লাক্সারিয়াজ ক্যারিয়ার করা পসিবল), প্রোডাক্ট এন্ড পেকেজিং ডিজাইন, লেভেল ডিজাইন, ইত্যাদি। মূলত প্রিন্ট ডিজাইন এর ক্যাটাগরি অসীম যা লিস্ট আকারে দেওয়াটা কষ্টসাধ্য। আপনি যেই কোন একটাকে টার্গেট করে ভালো ক্যারিয়ার করতে পারবেন। তবে অবশ্যই সেটা বিজনেস কার্ড ক্যাটাগরি না হওয়াই উত্তম।

২) ডিজিটাল মিডিয়াম ( অন স্ক্রিন ডিজাইন)

ডিজিটাল মিডিয়াম এর মধ্যে সর্ব প্রথম বলা যাই, ইউজার ইন্টারফেস ডিজাইন (স্বাভাবিক ভাবে ওয়েবসাইট এবং মোবাইল কিংবা কম্পিউটার এর সফটওয়্যার এর দৃশ্যমান ডিজাইন বুঝানো হয়), অনলাইন মাধ্যমে পাবলিশ করা বিভিন্ন ধরণের বিজ্ঞাপন বা আইডেন্টিটি ডিজাইন যেমন ফেসবুক বা লিংকডইন এর মত বিজনেস পেজের প্রোফাইল কভার, ফেসবুক, ইন্সটাগ্রাম, টুইটার ইত্যাদি মাধ্যমে দেওয়া পোস্ট বা বিজ্ঞাপনী গ্রাফিক, ডিজিটাল বিলবোর্ড, ইবুক, ম্যাগাজিন ইত্যাদি। আপাতত দৃষ্টিতে আপনার কাছে খুব সামান্য মনে হতে পারে যদি আপনি মডার্ন বিজনে পলিচি এন্ড ডিজিটাল মার্কেটিং সম্পর্কে একেবারেই ধারনা না ঠাকে। জাস্ট এইটুকু বুজেন যে একতা ফেসবুক এড গ্রাফিক ১০০ জন মার্কেটিং অফিসার এর কাজ করতে পারে এবং সেইটার মার্কেট সীমানা বিহীন।

এইগুলাই শেষ না, আর অনেক স্কিল ক্যাটাগরি রয়েছে

যদিও আমি গ্রাফিক ডিজাইনকে ২ ভাগে ভাগ করে ফেলছি আপনাকে সহজে বুঝানোর জন্যে তবে বেশিরভাগ ডিজাইনারই একটা বা দুইটা ক্যাটাগরি নিয়ে কাজ করেই জীবন পার করে দেয়। যেমন একজন লোগো ডিজাইন এক্সপার্ট সুধু লোগো ডিজাইনই করে, তবে অনেকে পাশাপাশি সে কর্পোরেট এইডেনটিটি এবং অন্যান্য প্রমোশনাল ডিজাইন করে থাকেন।

কিন্তু একজন লোগো ডিজাইনার সাধারণত ইউজার ইন্টারফেস ডিজাইন করবেন না। তবে একজন গ্রাফিক ডিজাইন চাইলে সব ক্যাটাগরির ডিজাইনই করতে পারবেন সুধু মাত্র ইউজার ইন্টারফেস, ডিজিটাল ইলাসট্রেসন এবং লোগো ডিজাইন। কারণ এই বিষয়ে তুলনামূলক বেশি দক্ষতা এবং সৃজনশীলতার প্রয়জন হয়। হয় তাঁর অন্য ক্যাটাগরিতে কাজ।

আমি কি গ্রাফিক ডিজাইনার হতে পাড়বো?

অনেকে প্রশ্ন করেন আমিতো আর্ট এর স্টুডেন্ট না বা আমি ভালো ড্রইং করতে পারি না আমি কি গ্রাফিক ডিজাইনার হতে পারবো? উত্তর হচ্ছে পারবেন, একজন ইলাস্ট্রেটর এর আর্ট স্কিল প্রয়োজন হয় গ্রাফিক ডিজাইনার এর না।

পরবর্তী পোস্টে লিখব কোন স্কিলের জন্যে কোন মার্কেটপ্লেস ভালো এবং কেন স্কিল নিয়ে কেমন টাকা আয় করা যাই।

গ্রাফিক ডিজািইন এবং ফ্রিল্যান্সিং বিষয়ক অন্যান্য যে পোস্টগুলো আপনার পড়া প্রয়োজন

অন্যান্য ফ্রি কোর্স সমূহ:

5/5 (2 Reviews)
Share:

Related Post

2
Leave a Reply

avatar
2 Comment threads
0 Thread replies
0 Followers
 
Most reacted comment
Hottest comment thread
2 Comment authors
Md Mahabubur Rahman Sotonsohelbkm Recent comment authors
  Subscribe  
newest oldest most voted
Notify of
sohelbkm
Member

Awesome

Md Mahabubur Rahman Soton
Member

Really very important article.

How would like to contact us?